নবারুণ ভট্টাচার্য ।

Please Share

নবারুণ ভট্টাচার্য (২৩ জুন ১৯৪৮ – ৩১ জুলাই ২০১৪) ছিলেন একজন ভারতীয় বাঙালি কবি ও কথাসাহিত্যিক।তিনি সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কার (১৯৯৭) ও বঙ্কিম পুরস্কার (১৯৯৬) গ্রহণ করেছেন। হারবার্টকাঙ্গাল মালসাট ইত্যাদি তাঁর বিখ্যাত উপন্যাস। তিনি লেখিকা মহাশ্বেতা দেবী এবং নাট্যকার বিজন ভট্টাচার্যের পুত্র।

প্রাথমিক জীবন

স্কুল জীবনে তিনি বালিগঞ্জ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়াশুনা করেন। চাকরি জীবনে তিনি ১৯৭৩ সালে একটি বিদেশি সংস্থায় যোগ দেন এবং ১৯৯১ পর্যন্ত সেখানে চাকরি করেন। এরপর কিছুদিন বিষ্ণু দের ‘সাহিত্যপত্র’ সম্পাদনা করেন এবং ২০০৩ থেকে পরিচালনা করছেন ‘ভাষাবন্ধন’ নামের একটি পত্রিকা। একসময় দীর্ঘদিন ‘নবান্ন’ নাট্যগোষ্ঠী পরিচালনা করতেন।

গ্রন্থতালিকা

কাব্যগ্রন্থ

  • এই মৃত্যু উপত্যকা আমার দেশ না (১৯৮৩)
  • পুলিশ করে মানুষ শিকার (১৯৮৭)
  • রাতের সার্কাস

ছোটগল্প

  • হালাল ঝাণ্ডা (১৯৮৭)
  • নবারুন ভট্টাচার্যের ছোটগল্প (১৯৯৬)
  • নবারুন ভট্টাচার্যের শ্রেষ্ঠ গল্প
  • ফ্যাতাড়ুর কুম্ভীপাক
  • ফ্যাতাড়ুর বোম্বাচাক
  • ফ্যাতাড়ু বিংশতি

উপন্যাস

  • হারবার্ট (১৯৯৩)
  • যুদ্ধ পরিস্থিতি (১৯৯৬)
  • অটো ও ভোগী
  • ফ্যাতাড়ু ও চোক্তার
  • কাঙাল মালসাট
  • মবলগে নভেল
  • খেলনা নগর
  • লুব্ধক (২০০৬)

অন্যান্য

জোড়াতালি (২০১৭)

চলচ্চিত্র

নবারুণ ভট্টাচার্যের উপন্যাস হারবার্ট অবলম্বনে পরিচালক সুমন মুখোপাধ্যায় তাঁর হারবার্ট চলচ্চিত্রটি নির্মাণ করেন। ২০১৩ সালে তাঁর ফ্যাতাড়ু সম্পর্কিত উপন্যাস কাঙাল মালসাট চলচ্চিত্রায়িত হয়।

পুরস্কার

  • সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কার (১৯৯৩)
  • বঙ্কিম পুরস্কার
  • নরসিংহ দাস পুরস্কার

মৃত্যু

নবারুণ ভট্টাচার্য জুলাই ৩১, ২০১৪ সালে আন্ত্রিক ক্যান্সারের কারণে কলকাতায় ঠাকুরপুকুর ক্যান্সার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায়, ৬৬ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।

নবারুণ ভট্টাচার্য

 

জন্ম

২৩ জুন ১৯৪৮

বহরমপুর, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত

মৃত্যু

৩১ জুলাই ২০১৪ (বয়স ৬৬)

কলকাতা

জাতীয়তা

ভারতীয়

নাগরিকত্ব

ভারতীয়

পেশা

লেখক, সম্পাদক

কার্যকাল

-২০১৪

আত্মীয়

  • বিজন ভট্টাচার্য (বাবা)
  • মহাশ্বেতা দেবী (মা)

পুরস্কার

সাহিত্য অকাদেমি পুরস্কার (ভারত)

Navrun Bhattacharya – নবারুণ ভট্টাচার্য ।

এখানে আছে ০৩টি বই ।
০৩ টি বই এর তালিকা নিচে দেয়া হলো :

সূচিপত্র
১.উপন্যাস সমগ্র ।
২.নবারুণ ভট্টাচার্য এর ছোটগল্প ।
৩.ফ্যাতাড়ুর কুম্ভীপাক ।

You May Also Like

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *